হবিগঞ্জে আদালত চত্বরেই যুবকের আত্মহত্যা

হবিগঞ্জে আদালত চত্বরেই যুবকের আত্মহত্যা

হবিগঞ্জে আদালত চত্বরেই যুবকের আত্মহত্যা
ছবি: সংগৃহীত

বৈচিত্র্য ডেস্ক:মামলা করেও স্ত্রী ও সন্তানকে না পাওয়ার ক্ষোভে হবিগঞ্জে আদালত চত্বরেই এক যুবক আত্মহত্যা করেছেন। মামলায় হেরে গিয়ে সোমবার দুপুরে তিনি নিজের বুকে ছুরি চালান। পরে হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়। 

নিহত যুবকের নাম হাফিজুর রহমান (৩০)। তিনি শহরের কামড়াপুর গ্রামের বাসিন্দা নূর মিয়ার ছেলে। 

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হাফিজুর কয়েক বছর আগে বানিয়াচং উপজেলার খাগাউড়া গ্রামের আবদুল খালেকের মেয়ে বুশরা বেগমকে (২৫) বিয়ে করেন। তাদের ঘরে একটি কন্যাসন্তানও রয়েছে। একটা সময় তাদের মধ্যে পারিবারিক বিষয়াদি নিয়ে মনোমালিন্য সৃষ্টি হয়। একপর্যায়ে বুশরা বাবার বাড়ি চলে যান। 

পরে স্ত্রী ও সন্তানকে পাওয়ার জন্য আদালতের দ্বারস্ত হন হাফিজুর। বানিয়াচং দ্বিতীয় আদালতে সোমবার এ মামলায় রায়ের দিন ছিল।  এদিন আদালতে হাজির হয়ে বুশরা জানান, তিনি স্বামীর ঘর করবেন না। পরিপ্রেক্ষিতে আদালত বুশরাকে বাবার জিম্মায় যাওয়ার আদেশ দেন। 

রাগে ও ক্ষোভে অভিমানে এজলাস থেকে বেরিয়ে হাফিজুর আদালত চত্বরেই নিজের বুকে ছুরি চালান। এতে তিনি গুরুতর জখম হলে লোকজন তাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে পাঠান। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে সিলেট পাঠানোর পথে তার মৃত্যু হয়।