যুক্তরাষ্ট্রে মহানুভবতার অনন্য নজির গড়লেন মুসলিম চিকিৎসক

যুক্তরাষ্ট্রে মহানুভবতার অনন্য নজির গড়লেন মুসলিম চিকিৎসক

যুক্তরাষ্ট্রে মহানুভবতার অনন্য নজির গড়লেন মুসলিম চিকিৎসক
ছবি: সংগৃহীত

বৈচিত্র ডেস্ক:ওমর আতিক নামে যুক্তরাষ্ট্রের এক মুসলিম চিকিৎসক মহামারী করোনায় অভাব-অনটনে থাকা ক্যান্সার রোগীদের সাড়ে পাঁচ কোটি টাকার বিল মওকুফ করে মহানুভবতার অনন্য নজির গড়েছেন।
 
২০০ দরিদ্র ক্যান্সার রোগীর প্রায় সাড়ে পাঁচ কোটি টাকার হাসপাতাল বিল মওকুফ করে দিয়েছেন আরকানসাস রাজ্যে ওই মার্কিন ক্যান্সার চিকিৎসক ।

ডা. ওমর আতিক বুঝতে পারছিলেন করোনা মহামারীর কারণে তাদের রোগীদের একটি বড় অংশ চিকিৎসার খরচ মেটাতে হিমশিম খাচ্ছেন। এর পর স্ত্রীর সঙ্গে পরামর্শ করে তিনি সিদ্ধান্ত নেন ওই বিপুল বিল মওকুফের।

কিন্তু সে জন্য বড় ধরনের মাসুলও গুনতে হয়েছে তাকে। প্রায় ৩০ বছর ধরে চালানো ক্লিনিকটি গত বছর বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছেন তিনি।

রোগীদের কাছ থেকে বকেয়া আদায়ের জন্য ডা. আতিক একটি পাওনা আদায়কারী প্রতিষ্ঠানের সাহায্য নিয়েছিলেন। কিন্তু হিসাব-নিকাশ করে তিনি বুঝতে পারেন, তার রোগীদের আর্থিক দুর্দশা।

এর পর ক্রিসমাসের সময় তিনি ২০০ রোগীকে চিঠি দিয়ে জানিয়ে দেন, তাদের বকেয়া মওকুফ করা হয়েছে।

পাকিস্তানি বংশোদ্ভূত ডা. আতিক ১৯৯১ সালে পাইন ব্লাফ শহরে আরকানসাস ক্যান্সার ক্লিনিক প্রতিষ্ঠা করেন। ক্লিনিকে কেমোথেরাপি, রেডিয়েশন থেরাপির মতো চিকিৎসা দেয়া হয় ওই প্রতিষ্ঠানে।

ডা. আতিক লিটল রকের ইউনিভার্সিটি অব আরকানসাস ফর মেডিকেল সায়েন্সেসে একজন অধ্যাপক হিসেবে কর্মরত আছেন।

এবিসির গুড মর্নিং আমেরিকা অনুষ্ঠানে তিনি বলেন, আমার মনে হলো মহামারীর মধ্যে বহু মানুষ ঠিকানা হারিয়েছে, আপনজন মারা গেছেন অনেকের এবং ব্যবসা-বাণিজ্য সব হারিয়ে নিঃস্ব হারিয়েছেন কত মানুষ।

ফলে বকেয়া মওকুফের জন্য এর চেয়ে ভালো সময় আর কী হতে পারে! আর এই কর্মের জন্য অ্যাডভোকেসি গ্রুপ আরকানসাস মেডিকেল সোসাইটি থেকে শুরু করে পাওনা আদায়কারী প্রতিষ্ঠান সবার বাহবা কুড়িয়েছেন তিনি।

যদিও শেষ পর্যন্ত অর্থ সংকটে নিজের ক্লিনিকটি বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়েছেন।

বিবিসি