দুই শতাধিক গ্রাহকের সঙ্গে মির্জাপুরে প্রতারণার অভিযোগ

দুই শতাধিক গ্রাহকের সঙ্গে মির্জাপুরে প্রতারণার অভিযোগ

দুই শতাধিক গ্রাহকের সঙ্গে মির্জাপুরে  প্রতারণার অভিযোগ
ছবি: সংগৃহীত

বৈচিত্র ডেস্ক:অতি মুনাফার লোভ দেখিয়ে আমানতকারীদের কয়েক কোটি টাকা নিয়ে মির্জাপুরে প্রতারক চক্রের সদস্যরা গা-ঢাকা দিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার ৯ নম্বর বহুরিয়া ইউনিয়নের আনাইলবাড়ী, আড়াইপাড়া ও কেশবপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে।

শুক্রবার বহুরিয়া ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ড মেম্বার মো. নজরুল ইসলাম, ভুক্তভোগীদের মধ্যে মো. ঠান্ডু মিয়া, জিন্না মিয়া, রেনু আক্তার, জয়ন্তীসহ শতাধিক ব্যক্তি অভিযোগ করে বলেন, আনাইলবাড়ী, কেশবপুর ও আড়াইপাড়া গ্রামের প্রবাসী আসাদ সিকদার (৪৫), তার স্ত্রী সম্পা আক্তার (৩৫), সম্পার শ্বশুর শামসুল হক (৬০), চাচাশ্বশুর আব্দুর রশিদ (৫৫) এবং সম্পা আক্তারের ভাই সজিব (৩৫)সহ সাত-আট জন আশ্বাস দিয়ে বলেন—তাদের কাছে টাকা রাখলে ব্যাংকের চেয়ে অধিক পরিমাণ লাভ দেওয়া হবে। প্রথম দিকে আমানতকারীকে কিছু টাকা মুনাফা দিয়ে আমানত বাড়িয়ে নিয়ে গত ১৫ দিন ধরে প্রতারক চক্রের সদস্যরা এলাকা ছেড়ে পালিয়ে গেছে।

নয়া মিয়াসহ ভুক্তভোগীদের মধ্যে সাত-আট জন অভিযুক্তদের নাম উল্লেখ করে মির্জাপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। এ ব্যাপারে অভিযুক্ত সম্পা আক্তার, আসাদ সিকদার, শামসুল হক, আব্দুর রশিদ ও সজিবের বাড়িতে গিয়ে তাদের পাওয়া যায়নি। মোবাইলে যোগাযোগ করা হলেও বন্ধ পাওয়া যায়।

স্থানীয় কৃষক লীগ নেতা মো. চাঁন মিয়া বলেন, প্রতারকদের খপ্পরে পরে এলাকার দুই শতাধিক নারী-পুরুষ সর্বস্বান্ত হয়েছে। মির্জাপুর থানার উপ-পরিদর্শক মো. ফয়েজ আহমেদ বলেন, এলাকার নারী-পুরুষদের প্রতারণার ফাঁদে ফেলে অধিক মুনাফা দেওয়ার কথা বলে সম্পা আক্তার ও তার সহযোগিরা প্রায় আড়াই কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে পলাতক বলে অভিযোগ এসেছে। পুলিশের পক্ষ থেকে তাদের গ্রেফতারের জন্য বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চলছে।