চারঘাটে গরু ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে আহত

চারঘাটে গরু ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে আহত

চারঘাটে গরু ব্যবসায়ীকে পিটিয়ে আহত
ছবি: সংগৃহীত

বৈচিত্র ডেস্ক:রাজশাহীর চারঘাট উপজেলায় ফেনসিডিলের চালান ধরিয়ে দেওয়ার অভিযোগে সন্ত্রাসীরা পাঞ্জাতন আলী (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করেছে।

বুধবার সন্ধ্যার দিকে উপজেলার সীমান্তবর্তী ইউসুফপুর গ্রামে এ হামলার ঘটনা ঘটে।

পাঞ্জাতন আলী গরু ব্যবসায়ী বলে এলাকাবাসী জানিয়েছেন। তার বাবার নাম আফাজ মণ্ডল। হামলায় পাঞ্জাতনের একটি পা ও একটি হাত ভেঙে গেছে। তাকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।  

ঘটনার বিববণ দিয়ে পাঞ্জাতনের স্ত্রীসহ এলাকাবাসী জানান, ইউসুফপুর এলাকার আজাদের নেতৃত্বে সীমান্তে একটি বড় মাদকচক্র দীর্ঘদিন ধরে ফেনসিডিলের চালান এনে দেশের ভেতরে পাচার করে আসছে। সম্প্রতি আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আজাদ সিন্ডিকেটের আনা ফেনসিডিলের একটি চালান ধরে ফেলে।

এ ঘটনার পর মাদকসম্রাট আজাদ ও তার লোকেরা একই গ্রামের পাঞ্জাতন আলীকে দায়ী করে আটক ফেনসিডিলের দাম আদায়ের জন্য চাপ দিয়ে আসছিল।

আজাদ বাহিনীর চাপাচাপি ও হুমকির কারণে পাঞ্জাতন কিছু দিন ধরে বাড়ি থেকে পালিয়ে থাকছিল।

এলাকাবাসী জানান, বুধবার সন্ধ্যার দিকে পাঞ্জাতন আলী চারঘাট বাজার থেকে কিছু জিনিসপত্র কিনে গোপনে বাড়ির দিকে যাচ্ছিলেন। এ সময় মাদকসম্রাট আজাদের নেতৃত্বে তার সন্ত্রাসী বাহিনী দেখতে পেয়ে লোহার রড ও জিআই পাইপ নিয়ে পাঞ্জাতনের গতিরোধ করে। চারদিক ঘিরে পাঞ্জাতনকে লোহার রড দিয়ে পেটাতে থাকে আজাদ বাহিনী। একপর্যায়ে রক্তাক্ত পাঞ্জাতন জ্ঞান হারিয়ে ফেললে সন্ত্রাসীরা তাকে ফেলে রেখে পালিয়ে যায়।
এলাকাবাসী পাঞ্জাতনকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ৩১নং ওয়ার্ডে ভর্তি করেন।

রামেক হাসপাতালের উপপরিচালক ডা. সাইফুল ফেরদৌস আতাতুর্ক জানিয়েছেন, হামলায় পাঞ্জাতনের একটি হাত ও এক পা ভেঙে গেছে। জরুরিভাবে তার অপারেশন করতে হবে। পাঞ্জাতনের শরীর ও মাথাতেও আঘাত গুরুতর বলে জানিয়েছেন তিনি।