কৃষ্ণসাগরে আবারো গ্যাসের খনি পেলো তুরস্ক

কৃষ্ণসাগরে আবারো গ্যাসের খনি পেলো তুরস্ক

কৃষ্ণসাগরে আবারো গ্যাসের খনি পেলো তুরস্ক
ছবি: সংগৃহীত

বৈচিত্র্য ডেস্ক: ‘কৃষ্ণসাগরে আরো ৮৫ বিলিয়ন কিউবিক মিটার প্রাকৃতিক গ্যাসের সন্ধান পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছেন, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ান। তেলগ্যাস অনুসন্ধানকারী জাহাজ ফেইথ এই আবিষ্কারটি করেছে। গতকাল শনিবার (১৭ অক্টোবর) এক ঘোষণায় এ কথা বলেন তিনি।

এরদোয়ান বলেন, নতুন এই আবিষ্কারে কৃষ্ণসাগরে সাকারইয়া গ্যাস ফিল্ডের মজুদ গিয়ে দাঁড়ালো ৪০৫ বিলিয়ন কিউবিক মিটারে। তুরস্কের ইতিহাসে এতো বড় প্রাকৃতিক হাইড্রোকার্বণের খনি এর আগে আবিষ্কার হয়নি। কৃষ্ণসাগরে আমরা যা পেয়েছি তা কল্পনাতীত।

মিডেল ইস্ট মনিটর বলছে, গত আগস্টে কৃষ্ণসাগরের এক অনুসন্ধানে তুর্কি ইতিহাসের সবচেয়ে বড় গ্যাস খনি আবিষ্কৃত হয়। এরপর ওই এলাকায় অনুসন্ধান অব্যাহত রাখার ঘোষণা দেন এরদোয়ান। শনিবার নতুন খনি পাওয়ার তথ্য জানালেন এরদোয়ান।

নতুন গ্যাস খনি আবিষ্কারের তথ্য ঘোষণা করতে গিয়ে তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, আগস্টে আমরা ৩২০ বিলিয়ন কিউবিক মিটার গ্যাসের সন্ধান পেয়েছি। যা আমাদের অত্যন্ত আনন্দ দিয়েছে। মজার বিষয় হচ্ছে আমাদের হাতে আরো ভালো সংবাদ আছে।

আবিষ্কৃত খনিগুলো তুরস্কের উত্তরে উপকূলীয় একালার ১৭০ কিলোমিটার জুড়ে বিস্তৃত। তুর্কি সরকার নিয়ন্ত্রিত সাকারিয়া গ্যাস ফিল্ডের আওতায় এসব খনিকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। দেশটির প্রশাসনের দাবী, ওই এলাকায় আরো বেশ কিছু খনি আছে। সেগুলো খুঁজে বের করার জন্যে অনুসন্ধান অব্যাহত আছে। তাদের আশা, ২০২৩ সালের মধ্যেই আবিষ্কৃত এসব খনি থেকে গ্যাস উত্তোলন করা হবে।